সুদূরতম পাইন

পাইন, দীর্ঘ বাতাস তোমারে আলোড়িত করে। কান্নায় আর কেঁপে কেঁপে ওঠা আলোগুলি

মুগ্ধ চোখ নিয়ে দেখে, তোমার পুরানো ঘ্রাণ এখনো হয় নাই মলিন।
বিশুষ্ক ল্যাম্পপোস্ট অন্ধকারে, দাঁড়িয়ে থাকে;
কেন আর কি করে পাইন, তুমি দেখবে শীর্ণ ও অতিকায়
রশ্মিগুলি নিয়ে যায় আমাদের।

তোমার গান আমরা শুনি, অন্ধকার নিরব হলে, দীর্ঘ বৃষ্টির পথে পথে
তোমার প্রতিরূপ; কবে, কে, তোমাতে ঠেস দিয়ে দাঁড়িয়েছিলো
আজ তা সত্যি মনে হয়।

উদগ্রীব একটা শিশু গাছ, যে শুশ্রুষাহীন, ছোট আর নমনীয়
কান পেতে শোনে তোমারে;

পাইন, এই সন্ধ্যায়, বৃষ্টির অন্ধকারে, তুমিও শোনো একা;
যে কেউ-ই হারিয়ে যেতে পারে

 

জুলাই ১৪, ১৯৯৮

আরো পড়তে পারেন

ঘরের কোণায়
তুমি যে আসো না আর আমার ঘরের কোণায়  বসো না সোফায় কোণাটা খালি খালি লাগে &nbsp...
না-লিখা
না-লিখার গর্তে পড়ে এরা আছে ঠিকই; লিখা নাই, না-লিখার হতাশা তো আছে! আছে কবিজন্ম, কবিতামুর্হূ...
অতীত কল্পনা থেকে
যখন যাই তখন কি আর ছায়া থাকে দুপুরের শেষে, বিকালে ফেরী চলে যায় ব্রীজের কিনার ঘেঁষে;...
আমার কবিতা
কিছু কবিতা নিলাম আমি ভেজা ঘাসগুলির কাছ থিকা কিছু কবিতা আমি নিলাম ভাঙা রাস্তার ইট-সুড়কির ক...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *