গুরুর চরণ

গুরুমুখী বিদ্যা, গোঁয়ার্তুমি সকল
এলো নম্র পায়ে
কী করে তারে চিহ্নিত করি
বলি, এই যে অনুরণন, তা সঙ্গ-আশ্রিত
প্রতিক্রিয়া বিন্যাস
ছল চাতুরী
কাঁপা কাঁপা অভিজ্ঞান

তোমারো প্রাণেরো ধারা
আসলে তা পারিপার্শ্বিকতা
ঝুল ধরে বসে থাকা
প্রাচীন বটের

তার তলায় বসে
শিখাচ্ছেন গুরু, নিষ্ঠতা বাক্যের
আর আমি চিৎপটাং
সম্মুখে তাহার
বলে যাই শিখানো লিপি
হামাগুড়ি দিই
তড়পাই
তারপর ছেড়ে আসি তারে

গুরুর চরণ, আমায় তো ছাড়ে না।

আরো পড়তে পারেন

চাঁদ
অনেকটা সময় আমি একলা থাকতে পারি। ভাবতে পারি, আমি আছি যে, এইটা আসলে নাই। তখন মনে হইতে থাকে,...
লাভ সং
  সবার  শেষে, তুমি আমারে শোনাও এমন নৈতিক কিছু, যেন আমি ভুলে থাকতে পারি বাস্তব...
‘ধান কাটা হয়ে গেলে পরে…’
ধান কাটা হয়ে গেছে কবে যেন — ক্ষেত মাঠে পড়ে আছে খড় পাতা কুটো ভাঙা ডিম — সাপের খোলস নীড় শী...
কবিতা: জুলাই, ২০১৮
ডোপামিন ডোপামিন, তুমি একস্ট্রিম তোমারে নিতে পারতেছি না আর ছোট ছোট কিক মারতেছো তুমি ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *